পেস না স্পিন! অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে কেমন হবে মিরপুরের উইকেট?

বাংলাদেশের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে আজ বিকালে ঢাকায় পৌঁছেছে অস্ট্রেলিয়া জাতীয় ক্রিকেট দল। মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচ গুলি অনুষ্ঠিত হবে।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কেমন হবে মিরপুরের উইকেট? দেশের মাটিতে ফাস্ট বোলারদের থেকে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে স্পিনাররা। সেটি টেস্ট হোক কিংবা টি-টোয়েন্টি। ফাস্ট বোলারদের থেকে দেশের মাটিতে স্পিনারদের আধিপত্য একটু বেশি থাকে।

তবে সামনে রয়েছে বিশ্বকাপের মিশন। দুবাইয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে দেশের মাটিতে ১৩ টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। তাই বিশ্বকাপে আগে প্রস্তুতি হিসেবে কেমন উইকেটে খেলতে চায় টাইগাররা?

বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়াসহ নিউজিল্যান্ড এবং ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। তাই দলের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে দেশের সেরা অস্ত্র ব্যবহার করতে চান বাংলাদেশ জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

এজন্য নিজেদের মূল শক্তি স্পিন আক্রমণ চালাতে চায় বাংলাদেশ। জাতীয় নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন,

‘আমাদের শক্তির জায়গা স্পিন। দলে ভালো মানের স্পিনার রয়েছে। তাদেরকে নিয়ে পরিকল্পনা করে আমাদের এগিয়ে যাওয়া উচিত। স্বাগতিক দেশ হিসেবে এসব সুবিধা তো আমাদের নেওয়া উচিত।’

তবে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবে স্পোর্টিং উইকেট চান ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন। এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং ওমানে। সেখানে উইকেট-এর সাথে মিল রেখেই সিরিজ খেলা উচিত বলে মনে করেন জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক।

তিনি বলেন,

“ঢাকা লিগের উইকেটগুলো কিন্তু স্পোর্টিং ছিল। ছেলেরা খেলে মজা পেয়েছে। বল কিন্তু স্পিনও করেছে। আবার পেসাররাও ভালো করেছে। এরকম উইকেটে খেলে অভ্যস্ত হওয়া উচিত। কারণ সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ।”

“সেখানকার উইকেট কিন্তু আইসিসির কিউরেটর বানাবে। ফলে দীর্ঘমেয়াদে সাফল্যর জন্য স্পোর্টিং উইকেটে খেলা ভালো। আমার বিশ্বাস স্পোর্টিং উইকেটে খেললেও বাংলাদেশ ম্যাচ জিতবে। ঘরের মাঠে বাংলাদেশকে এগিয়ে রাখতেই হবে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *